বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এসোসিয়েশন এ তালিকাভুক্ত আইডি নং – ৪২৯ ............................ দেশ ও জাতীর কল্যাণে সংবাদ ও সাংবাদিকতা!! আপনি কি সাংবাদিক হয়ে দেশ ও জাতীর কল্যাণে কাজ করতে চান তা হলে যোগাযোগ করুন ০১৭২৬৩০৪০৯২
প্রচ্ছদ

কমেডিয়ান অভিনেতা আনিস আর নেই

অনলাইন ডেস্কঃকমেডিয়ান অভিনেতা আনিসুর রহমান আনিসমারা গেছেন।

গতকাল রাত সাড়ে ১১ টায় টিকাটুলীর নিজ বাসায় ইন্তেকাল করেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

জানা গেছে, পরিবার সকালে টিকাটুলী জামে মসজিদে নামাজে জানাজা শেষে তার আদি নিবাস ফেনীর ছাগলনাইয়াতে নিয়ে যাবার কথা ভাবছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার তার মেয়েরজামাই শিমুল।

কিন্তু এর আগে এফডিসি প্রাঙ্গনে এই বিশিষ্ট অভিনেতার একটা জানাজা হবে কি না বা শেষ বারের মতো এফডিসিতে আনা হবে কিনা তা জানা যায়নি।

এদিকে, মঞ্চ, টিভি কিংবা চলচ্চিত্র– অভিনয়ের সব স্তরেই বিচরণ ছিলো তার। বলা যায় সব মাধ্যমেই সফল অভিনেতা ছিলেন আনিস। কমেডিয়ান হিসেবে ষাট থেকে নব্বইয়ের দশক পর্যন্ত জনপ্রিয়তার তুঙ্গে ছিলেন এ কমেডিয়ান অভিনেতা।

টেলিভিশনের বহু নাটক ও ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানে অভিনয় করে এই আনিস যে একজন কিংবদন্তি তুল্য তারকার মর্যাদা পেয়েছেন। তাকে বলা হত ‘হাসির রাজা’।

নবাব সিরাজুদ্দৌল্লা মঞ্চ নাটক করে ব্যাপক আলোচিত হন তিনি। বাংলাদেশ টেলিভিশনে ফজলে লোহানীর খ্যাতনামা ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘যদি কিছু মনে না করেন’ এ কইঞ্চেন দেহি কৌতুক পর্বে অভিনয় করে তিনি কৌতুক অভিনেতা হিসাবে দক্ষতার পরিচয় দেন। কৌতুকে তিনি যে নতুন এক ধারা এনেছিলেন যা নে রাখার মতো। তিনি শুধু অভিনেতা নন, একজন তারকাও ছিলেন।

আনিস ঢাকার চিত্র জগতে যোগ দেন ১৯৫৭ সালের দিকে। প্রথম দিকে আনিস ছবির জগতে সহকারী চিত্র সম্পাদক হিসেবে কাজ শুরু করেন। ঢাকার চলচ্চিত্রের বিখ্যাত দুই ভাই এহতেশাম ও মুস্তাফিজের লিও দোসানী ফিল্মসে কাজ করতেন তিনি।

সেখান থেকেই সুযোগ আসে অভিনয়ের। আনিসের প্রথম অভিনীত ছবি হল ‘বিষকন্যা’। এ ছবিতে কাজ শুরু করেন ১৯৫৯ সালের দিকে। কিন্তু দুর্ভাগ্য, পরবর্তীতে এ ছবিটি মুক্তি পায় নি। পরবর্তীতে আনিস শতাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*