বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এসোসিয়েশন এ তালিকাভুক্ত আইডি নং – ৪২৯ ............................ দেশ ও জাতীর কল্যাণে সংবাদ ও সাংবাদিকতা!! আপনি কি সাংবাদিক হয়ে দেশ ও জাতীর কল্যাণে কাজ করতে চান তা হলে যোগাযোগ করুন ০১৭২৬৩০৪০৯২
প্রচ্ছদ

নালিতাবাড়ীতে প্রতীক বরাদ্দের আগ পর্যন্ত নির্বাচনী প্রচার বন্ধ

মঞ্জুরুল আহসান, নালিতাবাড়ী(শেরপুর) প্রতিনিধি:
শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রতিক বরাদ্দ পর্যন্ত প্রার্থীদে পক্ষ থেকে সকল নির্বাচনি প্রচার, গণ সংযোগ,সভা না করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন সকল প্রার্থীরা। সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচনি আচরণ বিধি লংঘনের অভিযোগে আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী মোশারফ হোসেনের পক্ষে কর্মী সমর্থকরা উপজেলার যোগানিয়া ইউনিয়নের তালতলা বাজার,বাল্লাকান্দা ও পৌরশহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকায় নৌকা তৈরি করে সড়কে প্রদর্শন করেন। মঙ্গলবার সহকারি রিটার্নিং কর্মকর্তা ও ইউএনও আরিফুর রহমান এবং সহকারী কমিশনার(ভ’মি) লুবনা শারমিনকে সঙ্গে নিয়ে অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় তিনটি স্থান থেকে নৌকা অপসারণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতেও অভিযানে বাঁশকান্দা বাজার এবং ফুলপুর বান্দের বাজার থেকে নৌকা অপসারণ করেন। বুধবার সকালে মরিচপুরান, দুপুরে পৌরশহরের গড়কান্দা এলাকা থেকে নৌকা অপসারন করেন।
এছাড়া গতকাল দুপুরে উপজেলা পরিষদের সভা কক্ষে চেয়ারম্যান,ভাইস চেয়ারম্যান এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীদের নিয়ে নির্বাচনি আচরণ বিধি লংঘন সম্পর্কে সভা করেন। আগামী ৮ মার্চ শুক্রবার প্রাথীদের প্রতিক বরাদ্দ দেওয়া হবে। প্রতিক বরাদ্দের আগে প্রার্থীদের পক্ষে প্রচারণা চালালে আচরণ বিধি লংঘন হবে বলে সব প্রার্থীকে অবগত করেন। সকল প্রার্থী আচরণ বিধি মেনে চলতে শুক্রবার পর্যন্ত সকল সভা,গনসংযোগ,পথ সভা,কর্মী সভা না করার প্রতিশ্রুতি দেন। প্রার্থীদের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বুধবার থেকে আগামী শুক্রবার পর্যন্ত প্রার্থীদের সকল প্রচারণা বন্ধ থাকবে। বৃহস্পতিবার মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন। আগামী শুক্রবার প্রার্থীদের মাঝে প্রতিক বরাদ্দ দেওয়া হবে। আগামী ২৪ মার্চ এই উপজেলায় ভোট অনুষ্ঠিত হবে।
সহকারী রির্টানিং কর্মকর্তা ও ইউএনও আরিফুর রহমান বলেন, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ ভোট অনুষ্ঠিত হবে। এখানে কোন প্রকার বিশৃঙ্খলা করার সুযোগ নেই। ৮ মার্চ প্রার্থীদের মাঝে প্রতিক বরাদ্দ দেওয়া হবে। এর আগে কোন প্রার্থী প্রচারণা চালাতে পারবেন না। প্রার্থীরা সবাই কথা দিয়েছেন। আগামী শুক্রবার প্রতিক বরাদ্দের পর প্রচারণা চালাতে পারবেন। নির্বাচনি আচরণ রক্ষা করতে উপজেলায় মাইক যোগে প্রচার করা হয়েছে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*